শিক্ষকদের থেকে হলফনামার তলব রাজ্যের

রাজ্য

শিক্ষকদের থেকে হলফনামা চাইল রাজ্য। করোনা সংক্রমণ এবং লকডাউন এই দুইয়ের জেরে গত ৭ মাস ধরে বন্ধ রাজ্যের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। তারপরও শিক্ষকদের কোনো রকম বেতন হ্রাস করেনি রাজ্য সরকার। কিন্তু অভিযোগ এসেছে, বাড়িতে বসে বেতন পাওয়ার সত্ত্বেও শিক্ষকদের একাংশ প্রাইভেট টিউশন করে যাচ্ছেন। এই অভিযোগের দায়ে, ইতিমধ্যেই রিপোর্ট চেয়ে পাঠিয়েছে জাতীয় শিশু অধিকার সুরক্ষা কমিশন। শিক্ষার অধিকার আইন অনুযায়ী, স্কুল শিক্ষকদের প্রাইভেট টিউশন করা বেআইনি এবং শাস্তিযোগ্য অপরাধ বলে মনে করা হয়। অন্যদিকে, করোনা পরিস্থিতিতে চরম দুর্দশায় দিন কাটাচ্ছেন গৃহশিক্ষকরা। এমনকি চরম আর্থিক সঙ্কটে গৃহশিক্ষকের আত্মহত্যার খবরও সামনে এসেছে সরকারের। রাজ্যে গৃহশিক্ষকের সংখ্যা ৫ লক্ষেরও বেশি। তাঁদের দুর্দশা এবং স্কুলশিক্ষকদের একাংশের এই দুর্নীতি জানতে পেরেছে এনসিপিসিআর। এই বিষয়ে রাজ্যের প্রতিটি জেলায় তদন্ত হবে বলে জানিয়েছে কেন্দ্রীয় সরকারের অধীন শিশু অধিকার সুরক্ষা কমিশন।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *