ভুয়ো ডেথ সার্টিফিকেট জীবিত ব্যক্তির নামে

জেলা

জীবিত ব্যক্তির ডেথ সার্টিফিকেট। তাজ্জব এই ঘটনা ঘটেছে সিউড়িতে। ঘটনার পরিপেক্ষিতে কাঠগড়ায় সিউড়ি পৌরসভা এবং তৎকালীন সিউড়ি পৌরসভার চেয়ারম্যান।বীরভূমের সিউড়ি থানার অন্তর্গত হুসনাবাদ আবুল কালাম খান নামে এক ব্যক্তি জীবিত থাকা অবস্থাতেই তার নামে ডেথ সার্টিফিকেট বের করার অভিযোগ উঠল তার বাড়িতে ভাড়া থাকা তাজমিরা বিবি নামে এক মহিলার বিরুদ্ধে। ডেথ সার্টিফিকেট বের করা হয়েছে ৯ই আগস্ট ২০১৭ সালে। অভিযোগ উঠছে ওই ব্যক্তির নামে ডেট সার্টিফিকেট বের করা হয়েছে। এরপর প্রশ্ন উঠতে শুরু করেছে কিভাবে সিউড়ি পৌরসভা একজন জীবিত থাকা ব্যক্তির ডেথ সার্টিফিকেট দেওয়ার মতো দায়িত্বজ্ঞানহীন এবং কাণ্ডজ্ঞানহীন কাজ করলো। আবুল কালাম খানের অভিযোগ, আমরা এমনিতেই পঞ্চায়েত এলাকার বাসিন্দা। তা সত্ত্বেও টাকা পয়সা দিয়ে সিউড়ি মিউনিসিপ্যালিটি থেকে এই ডেথ সার্টিফিকেট বের করা হয়েছে।কিন্তু কেন এমন ডেথ সার্টিফিকেট বের করা হয়েছে। সে বিষয়ে আবুল কালাম খান জানিয়েছেন, আমার বাড়ি দখল করার জন্য ভাড়াটিয়ারা এমন করেছেন। তারা প্রথমে আমার ডেথ সার্টিফিকেট তৈরি করে বাড়ির রেকর্ড পরিবর্তন করেন বিএলআরও অফিস থেকে। আর এখন আমাদের হুঁশিয়ারি দিয়েছেন ওই বাড়ি তাদের বলে।আর এমন তাজ্জব ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে বর্তমান সিউড়ি পৌরসভার প্রশাসক অঞ্জন কর জানিয়েছেন, এমন ঘটনা হওয়া উচিত নয়। তবে কেন কীভাবে এই ঘটনা ঘটলো তা আমরা খতিয়ে দেখবো। এখন অফিসে পুজোর ছুটি হয়ে গেছে, পুজোর ছুটির পর খুললেই খতিয়ে দেখা হবে এবং এই ঘটনার পরিপ্রেক্ষিতে তদন্ত শুরু করা হবে।”অন্যদিকে এই ঘটনার পর আবুল কালাম খান এবং তার স্ত্রী সিউড়ি থানার দ্বারস্থ হয়েছেন ন্যায্য বিচার পেতে।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *