সমাপ্তি এক অধ্যায়ের

কলকাতা

প্রয়াত বর্ষীয়ান অভিনেতা সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। ৪১ দিনের লড়াই শেষ করে চলে গেলেন এই কিংবদন্তী অভিনেতা। বেলা বারোটা পনেরো মিনিট নাগাদ প্রয়াত হলেন বাংলা অভিনয় জগতের শেষ নক্ষত্র সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। বয়স হয়েছিল ৮৫। করোনা আক্রান্ত হয়ে ৬ অক্টোবর থেকে শহরের এক বেসরকারী নার্সিংহোমে ভর্তি ছিলেন সৌমিত্র। তারপর টানা ৪১ দিনের লড়াই। তাঁর প্রয়ানে বাংলা সিনেমার জগৎে এক অধ্যায়ের অবসান ঘটল। ৩০০ এর বেশী ছবিতে অভিনয় করেছিলেন এই অভিনেতা। শুধু সিনেমা নয় থিয়েটার,কবিতাতেও সমান পারদর্শী ছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। সত্যজিৎ রায়ের অপুর সংসারে প্রথম আত্মপ্রকাশ করেন। তবে পেশাদত জীবন শুরু অল ইন্ডিয়া রেডিওতে। ২০১১ সালে দাদাসাহেব ফালকে সম্মানে সম্মানিত হন। ২০১৪ সালে পদ্মবিভূষনেও। ২০০৮ সালে জাতীয় পুরষ্কার পান। ৯০ এর দশকে বাংলা সিনেমায় এককালীন দাপিয়ে বেড়িয়েছেন এই অভিনেতা। সত্যজিৎ রায়ের সিনেমায় সবসময়ের প্রথম পছন্দের ছিলেন সৌমিত্র চট্টোপাধ্যায়। লেখালিখির পাশাপাশী নানা পত্রিকার সম্পাদনা করেছিলেন তিনি। তাঁর প্রয়ানে শোকাহত গোটা বাংলা চলচিত্র জগৎ থেকে সমগ্র বাঙালী জাতি।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *