তাঁতে বোনা কাপড় দিয়ে তৈরি মাস্ক,জোগাচ্ছে অর্থ

0
2

তাঁতে বোনা কাপড় দিয়েই মাস্ক তৈরী করে বিক্রি করে তাঁতীদের অর্থ জোগাচ্ছেন নদীয়ার শান্তিপুরের একটি কোঃ অপারেটিভ সোসাইটি ৷ দীর্ঘ লক ডাউনের জেরে শান্তিপুর, ফুলিয়া, আইশতলা,ধনেখালী, সমুদ্রগড় সহ সমস্ত জায়গার তাঁত শিল্পের সাথে যুক্ত লক্ষ লক্ষ মানুষ আজ কর্মহীন হয়ে পড়েছেন ৷ তাঁতীদের যে সমবায় সমিতি রয়েছে সেগুলির অবস্থাও খুবই করুন ৷ বছরের অন্য সময় এই সমবায় সমিতিগুলি থেকে তন্তুশ্রী, তন্তুজ কাপড় কিনে নেয় ৷ কিন্তু এখন তন্তুজ কিংবা তন্তুশ্রীও কাপড় কেনা বন্ধ করে দেওয়ায় সমস্যার মুখে পড়ছেন রাজ্যের সরকারী এবং বেসরকারী যৌথ উদ্যোগে চলা সমবায় সমিতিগুলি ৷ এমতঅবস্থায় শান্তিপুর পঞ্চরত্ন রোডের তন্তুশিল্প কোঃ অপারেটিভ উইভার্স সোসাইটি তাদের তাঁতীদের পাশে দাঁড়াতে নতুন উদ্যোগ নিয়েছে ৷ তাঁতীদের দ্বারা উৎপাদিত সম্পূর্ন সুতীর তাঁত শাড়িগুলি তাদের পরিবারের মেয়েদের দিয়ে মাস্ক তৈরী করাচ্ছেন ৷ আর সেই মাস্ক বিক্রি করে যে সামান্য পয়সা রোজগার হচ্ছে তা তাদের ১১জন তাঁতীর মধ্যে ভাগ করে দিচ্ছেন ৷ কিন্তু সরকার সেভাবে পাশে না দাঁড়ানোয় ক্ষোভ শোনা গেলো সমিতির সাথে যুক্ত ব্যক্তিদের কাছ থেকে৷ কোঃ অপারেটিভ সোসাইটির সদস্যরা শান্তিপুরের বিধায়ক অরিন্দম ভট্টাচর্য, শান্তিপুর পোরসভার পৌরপতি তথা মঞ্জুষার চেয়ারম্যান অজয় দে-র কাছে চরম অর্থ সংকটে তাঁতীদের সহযোগিতা করার আবেদনও জানিয়েছেন৷ সমবায় সমিতির কর্মী শুভদীপ দত্ত জানান, যে তাঁদের কাপড় মূলত হাটে বিক্রি হয় ৷ কিন্তু হাট বন্ধ হওয়ায় কাপড় বিক্রি হচ্ছে না ৷ ফলে সমস্যা গভীর হচ্ছে৷ এদিকে বাংলার অন্যতম বৃহৎ তাঁত কাপড়ের হাট শান্তিপুরের বঙ্গ ঘোষ ও জগদ্ধাত্রী তাঁত কাপড়ের হাট খোলার বিষয়ে আলোচনা চলছে বলে জানা গেছে ৷ সরকারী অনুমতি পেলে ওই হাট খোলা হতে পারে বলে কাপড়ের হাট সূত্রে খবর।

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here