শিক্ষিকাকে ধর্ষণের অভিযোগ উঠল তৃণমূল কংগ্রেস নেতার বিরুদ্ধে

0
0

কোচবিহার : রবিবার রাতে দিনহাটা থানায় এক প্রভাবশালী তৃণমূল কংগ্রেস নেতা নুর আলমের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের হল যে, তিনি এক শিক্ষিকাকে টানা ধর্ষণ করে গেছেন বহুদিন যাবত। অভিযুক্ত এই নেতা কোচবিহার জেলা পরিষদের কর্মাদক্ষ এবং সব সময় সামনের সারিতে এসে রাজনীতি করার জন্য তিনি পরিচিত।

এই বিষয়ে বলতে গিয়ে তৃণমূল কার্যকারী সভাপতি পার্থপ্রতিম রায় বলেন যে, “অভিযোগ দায়ের হলেই কিছু প্রমাণিত হয় না।” অভিযোগকারিণী ওই শিক্ষিকা জানিয়েছেন যে তিনি একজন প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষিকা এবং তাঁর স্বামী হাইস্কুলের শিক্ষক। তাঁদের একটি সন্তানও রয়েছে।

 

এক সময় নূর আলম হোসেনের সাথে তাঁদের পরিবারের সুসম্পর্ক গড়ে ওঠে। এরপরেই কু প্রস্তাব দিতে শুরু করে। কিন্তু তাঁর প্রস্তাব প্রত্যক্ষান করলে হুমকি দিতে শুরু করে বলে অভিযোগ। এরপরেই ২০১৯ সালের ২৬ অক্টোবর তাঁকে বাড়িতে একা পেয়ে জোর করে ধর্ষণ করে ওই তৃণমূল কংগ্রেস নেতা।

আর ধর্ষণের সময় ছবি তুলে নিয়ে নিয়মতি ভাবে ব্ল্যাকমেল করে টানা ধর্ষণ করতে থাকে। চলে প্রানে মারার হুমকিও। শেষ পর্যন্ত ভয়কে উপেক্ষা করে পুলিশ প্রশাসনের দ্বারস্থ হয় ওই নির্যাতিতা। এই বিষয়ে বলতে গিয়ে অভিযুক্ত তৃণমূল নেতার নূর আলম জানিয়েছেন, সমস্ত অভিযোগ মিথ্যা, এবং তিনি কোন চক্রান্তের শিকার হয়েছেন বলেই তিনি মনে করছেন।

যদিও এখনো পর্যন্ত ক্যামেরার সামনে কোনো রকম প্রতিক্রিয়া দেননি তিনি। অন্যদিকে আজ নির্যাতিতাকে দিনহাটা কোর্টে গোপন জবানবন্দি দেওয়ার জন্য নিয়ে আসা হয়েছে বলে জানা গিয়েছে। সেখানে তিনি সাংবাদিকদের তার ভয়ের কারণ জানিয়েছেন।

 

LEAVE A REPLY

Please enter your comment!
Please enter your name here