সুশান্তের মৃত্যুর পরোক্ষ কারণ হিসেবে সলমন খান, কর্ণ জোহর, সঞ্জয় লীলা বনশালি, আদিত্য চোপড়ার মতো প্রভাবশালীদের দায়ী করছে ইন্ডাস্ট্রির একাংশ

দেশ বিনোদন রাজ্য

ভূমি টিভি ডেস্ক :  সুশান্ত সিংহ রাজপুতের মৃত্যু যেন গোটা বলিউড ইন্ডাস্ট্রির একাংশকে প্রশ্নের মুখে দাঁড় করিয়ে দিয়েছে। তার মৃত্যুতে কাঠগড়ায় দাঁড়াতে হচ্ছে কর্ণ জোহর, সলমন খান, আদিত্য চোপড়ার মতো প্রভাবশালীদের। এই ঘটনার প্রভাব পড়েছে তারকাদের সোশ্যাল মিডিয়ার ভক্ত তালিকায়। গত কয়েকদিনে আলিয়া ভট্ট, কর্ণ জোহর, সলমন খানের ভক্তসংখ্যা কমেছে চোখে পড়ার মতো। সাথে সাথে শুরু হয়ে গেছে #বয়কট কর্ণ জোহর বা #বয়কট স্টার কিডস মুভি। এর সঙ্গে এদের করা মন্তব্যকে ঘিরেও জল্পনা তুঙ্গে উঠেছে। যার ফলে সোশ্যাল মিডিয়ায় এদের ট্রোলের শিকার হতে হচ্ছে।

সুশান্তের মৃত্যুর পরোক্ষ কারণ হিসেবে সলমন খান, কর্ণ জোহর, সঞ্জয় লীলা বনশালি, আদিত্য চোপড়ার মতো প্রভাবশালীদের দায়ী করছে ইন্ডাস্ট্রির একাংশ। বলা হচ্ছে এদের কারণেই সুশান্তের হাত থেকে বেড়িয়ে গেছে একের পর এক ছবির সুযোগ। বলা হচ্ছে এইভাবে পরিকল্পিত ভাবে অভিনেতাকে মানসিক অবসাদের দিকে ঠেলে দিয়ে আত্মহত্যা করতে বাধ্য করা হয়েছে। ‘ছিছোরে’ সিনেমার পরিচালক নিতেশ তিওয়ারির ইন্সটাগ্রামে যেখানে তিনি সুশান্তকে জন্মদিনে শুভেচ্ছা জানিয়ে একটি ছবি পোস্ট করেছিলেন, সেই ছবিতেই সুশান্ত জন্মদিনের উপহার হিসেবে আরও একটি ছবিতে সুযোগ করে দেওয়ার কথা বলেছিলেন। সোশ্যাল মিডিয়ায় সেই ছবি এখন ভাইরাল।

পাশাপাশি ‘কফি উইথ কর্ণ’ এর একটি ফুটেজে আলিয়ার ‘কে সুশান্ত’ মন্তব্যের ফুটেজও ভাইরাল। সবকিছুর জেরে পাটনা কোর্টে আট প্রভাবশালীর বিরুদ্ধে মামলা দায়ের করা হয়েছে। এই হ্যাশট্যাগ আন্দোলন হয়তো কিছুদিন পর থেমে যাবে। কিন্তু সোশ্যাল মিডিয়ায় ভক্তসংখ্যার পতন কর্ণ, আলিয়া, সলমনের ইমেজের পক্ষে যে ক্ষতিকারক তা বলাই বাহুল্য। সব ধোঁয়াশা কাটিয়ে আদৌ সত্যি বেড়িয়ে আসবে কি নাকি সবকিছু প্রভাব খাটিয়ে চাপা দিয়ে নিছকই আত্মহত্যা বলে ছাড় পেয়ে যাবে এই রাঘববোয়ালরা? এখন সেটাই দেখার।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *