সরকারি নির্দেশনা মেনেই সম্পন্ন হল বিবাহ

জেলা রাজ্য

 

                                                 “যদিদং হৃদয়ং তব তদিদং হৃদয়ং মম”

নদীয়া : লকডাউনের মাঝে গৃহবন্দি দুটি মনের মিলন হল। পারস্পরিক দূরত্ব বজায় রেখে শুভ পরিনয় সম্পন্ন হল। নিয়ম রক্ষার্থে বরযাত্রী মাত্র তিনজন, কন্যার পক্ষেও তিনজন, পৌরোহিত্য করা ব্রাহ্মণ, বর কনে সকলেই মুখে মাক্স লাগিয়ে ছাতনা তলায় চক দিয়ে কাটা সীমারেখার মধ্যে অবস্থান। নদীয়ার শান্তিপুর শহরের বাগআঁচড়া অঞ্চলের রঘুনাথ বিশ্বাসের একমাত্র কন্যা কামনা বিশ্বাসের সাথে শান্তিপুর শহরের ২৪ নম্বর ওয়ার্ডের রামনগর চর এলাকার বিধান প্রামানিকের একমাত্র পুত্র বিনয় প্রামানিকের শুভপরিণয়ের সাক্ষী হয়ে থাকলো সোশ্যাল মিডিয়া এবং নেটদুনিয়া। ৬ মাস আগেই পাকা কথা হয়েছিল ঠিকই। গত ১৭ এপ্রিল চার হাত এক করার কথা ছিল! সেইমতো কার্ড ছাপানো আত্মীয়-স্বজন কি নিমন্ত্রণ সবটাই হয়ে গেলেও লকডাউন গ্রাস করল সবকিছু। পাড়ার গুণীজন আত্মীয়-স্বজনের আন্দাজ করা লকডাউন ৩ তারিখ পর্যন্ত জারি হতে পারে ভেবে অগত্যা বিয়ের তারিখ পিছিয়ে ৪ঠা মে করা হয়। লকডাউনের সময়সীমা বাড়ায়, আগামী কতদিন থাকবে তা অনিশ্চিত থাকায় এলাকার মেম্বার প্রধান উপপ্রধান সহ আত্মীয়-স্বজনদের আলোচনায় উঠে আসে সম্মতি। ঠাকুমার নাতজামাইয়ের মুখ দেখার তাগিদেই বিনয়ের কামনা রাজি হয় অবশেষে। পুরোহিত সন্তোষ ঘোষাল জানান আইবুড়ো ভাত,গায়ে হলুদ, নান্হিমুখ, কন্যা সম্প্রদান ধর্মীয় রীতিনীতি সবটাই ঠিকঠাক পালন করা হয়েছে নবদম্পতির মঙ্গলার্থে। তবে তা সরকারি নিয়ম নীতি সব মেনেই এই শুভ বিবাহ সম্পন্ন করা হচ্ছে।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *