খুনের অভিযোগ নিতে অস্বীকার থানায় প্রতিবাদে অবরোধ যশোর রোড

জেলা রাজ্য

উত্তর ২৪ পরগনা জেলার মধ্যমগ্রাম কাটাখাল এলাকায় এক গেঞ্জির কোম্পানিতে থেকে কাজ করতো, গুমা প্রবোধ নগরের বাসিন্দা পুলক কীর্তনীয়া। মধ্যমগ্রাম থানা থেকে বুধবার ফোন আসে পুলক গুরুতর অসুস্থ বর্তমানে বারাসাত হাসপাতালে রয়েছে। পুলকের পরিবারের লোকজন বারাসাত হাসপাতালে গিয়ে দেখতে পায় পুলকের মৃতদেহ পড়ে রয়েছে। স্থানীয় নারায়ণপুর থানায় অভিযোগ দায়ের করতে গেলে পুলিশ অভিযোগ নিতে অস্বীকার করে। শুক্রবার পুলকের মৃতদেহ ময়নাতদন্তের পর গুমাতে এনে যশোর রোড অবরোধ শুরু করে গ্রামবাসীরা।পরিবারের লোকেদের অভিযোগ দীর্ঘদিন ধরেই ওই কোম্পানিতে থেকে কাজ করতো পুলক সেই কারণেই কালিনগরের এক মহিলা দোলন বিশ্বাস সঙ্গে বিবাহ করে এরপর দু’জনের ওই কোম্পানির রুমে থাকতে শুরু করে । স্ত্রীর পরিবারের লোকজনের যাতায়াত ছিল কোম্পানিতে কোন অশান্তি সৃষ্টি হয় তারই কারণে পুলককে খুন করেছে বলে অভিযোগ করে পুলকের পরিবারের লোকজন। পুলকের ভাই অভিজিৎ মজুমদার দাবি, প্রশাসন সঠিকভাবে কাজ করছে না সেই কারণেই তাদের এই রাস্তা অবরোধ। আরও দাবি পুলিশ অবিলম্বে এফআইআর দায়ের করুক ও দোষীদের কঠিনতম শাস্তি হোক।

youtube.com/watch?v=58R637ntHGM

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *