কালবৈশাখীর দাপট

জেলা রাজ্য

নদীয়ার শান্তিপুর শহরের ৬ নম্বর ওয়ার্ডের মুদি পাড়ার দীপ্তি মন্ডল। স্বামীহারা হয়েছিলেন গত ৪ বছর আগে। বৃদ্ধ পিতা ও এক সন্তানের যাবতীয় খরচ যোগাতে পরিচায়িকার কাজ করেন। লকডাউনে সেটাও বন্ধ। অভাবের জোড়াতালি দেওয়া টিনের ছাউনি আমফান কৃপা করলেও রেহাই দেয়নি কালবৈশাখী। দমকা হাওয়ায়, অনাবৃত হয়েছে মাথার উপরে ছাউনি, বৃষ্টিতে ভিজে সারা হয়েছে গৃহস্থালির সমস্ত ব্যবহার্য জিনিস। প্রতিবেশীরা ছুটে এসে, এটা ওটা দিয়ে কোনরকমে ঢেকে রাখলেও রক্ষা করা যায়নি তিল তিল করে গড়ে তোলা সংসারের বহু ব্যবহার্য জিনিস। নতুন করে ঘর ছাইতে পাড়ার ছেলেরা চেয়েচিন্তে কিছু জোগাড় করলেও প্রয়োজনের নিরীখে তা সামান্য মাত্র। জনপ্রতিনিধিদের কেউ উপস্থিত হলেও “দেখছি দেখছি” সান্তনাবাক্য মিললেও কেটে গেল দুটি দিন। কিন্তু ঘর এখনো হলো না তৈরি।

 

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *