আইনজীবীর

আইনজীবীর গাড়ির ধাক্কায় গুরুতর জখম টোটো চালক সহ ২

জেলা রাজ্য

লকডাউনে আইনজীবীর গাড়ির ধাক্কায় গুরুতর জখম টোটো চালক এবং এক মহিলা যাত্রী। দুর্ঘটনার পর গাড়ির ছবি তুলতে গেলে চিত্র সাংবাদিককে উদ্দেশ্য করে অশালীন আচরণ গাড়ি মালিকের। লকডাউনে প্রশাসনের নির্দেশ মতো সকলের জন্য সমান আইন ব্যবস্থা।

কিন্তু আইনজীবী নিজের প্রভাব খাটিয়ে লকডাউন পরিস্থিতিতে নিজের স্ত্রীকে চারচাকা গাড়ি চালানোর শেখাচ্ছিলেন মালদা শহরের রথবাড়ি এলাকায় বলে অভিযোগ। বুধবার সকালে গাড়ি চালানো শিখতে গিয়ে একটি টোটোর পেছনে ধাক্কা মারে গাড়িটি।

ঘটনাটি ঘটে মালদা শহরের রথবাড়ি এলাকায় ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে। গুরুতর জখম হয় টোটো চালক এবং এক মহিলা যাত্রী। দুর্ঘটনার ফলে আইনজীবীর গাড়ির ভাইজার ভেঙে যায়। এরপরে দুর্ঘটনার ছবি তুলতে গেলে অশালীন আচরণ শুরু করেন আইনজীবী। উল্টে ক্যামেরার সামনে ওই আইনজীবী বলেন যা করেছেন ভালো করেছেন।

স্থানীয় বাসিন্দারা আহত মহিলা যাত্রী এবং টোটো চালককে উদ্ধার করে মালদা মেডিকেল কলেজ ও হাসপাতালে চিকিৎসার ব্যবস্থা করেন। দুর্ঘটনার পর ইংরেজ বাজার থানার পুলিশ গাড়িটিকে আটক করেছে। এখন প্রশ্ন? এক মাসের বেশি সময় ধরে সারা ভারতের সঙ্গে মালদা জেলাতেও চলছে লকডাউন পরিস্থিতি।

সমস্ত যানবাহন বন্ধ রাখার নির্দেশ দিয়েছে পুলিশ প্রশাসন। কিন্তু তারপরও কিভাবে ওই আইনজীবীর গাড়ি রাস্তায় চলাচল করছিল। কেন এই সময় আইনজীবীরা স্ত্রী গাড়ি চালানো শিখছিল ৩৪ নম্বর জাতীয় সড়কে। দুর্ঘটনার পর এমনই প্রশ্ন তুলতে শুরু করেছে জেলাবাসী।

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *